198011

মা ছেলের ক্রিকেট খেলা নিয়ে যা বললেন শায়খ আহমাদুল্লাহ

আওয়ার ইসলাম: আলোচিত মা ছেলের ক্রিকেট খেলা নিয়ে শায়খ আহমাদুল্লাহ বলেছেন, মা এবং ছেলের ক্রিকেট খেলার যে ছবি ভাইরাল হয়েছে। এটা নিয়ে বেশ আলোচনা ও বিরুপ আলোচনার ঝড় বইছে। আসলে আমরা বুঝাতে চেয়েছি যে, মা-বাবার উচিত সন্তানদের একান্তে সময় দেয়া। তাদের খেলার সঙ্গী হতে পারলে তাদের কল্যানের পথে ধরে রাখা অনেক বেশি ভালো। এটা তাদের মেধা বিকাশের জন্য অনেক বেশি সহায়ক।

সে সাথে একটি বিষয় অবশ্যই বলতে হবে। তাহলো, প্রফেশন হিসেবে নিজের সন্তানকে কোনো খেলোয়ার হিসেবে গড়ে তোলার চেষ্টা একজন আদর্শ মুসলিমের জন্য কোনো অবস্থাতেই সমীচিন হবে না। তার কারণ হলো, খেলাধুলা এগুলো এমন কোন বিষয় নয়, যে বিষয়গুলো আমাদের দুনিয়া ও আখেরাতে তাদের মৌলিক কল্যাণকর কোন বিষয়। এ ধরনের বিষয়কে সিরিয়াসের সাথে নেয়া বা জীবনের টার্গেট বানিয়ে নেয়া ইসলামের যে মূল স্পিরীট আছে তার সঙ্গে এটা যায় না।

সেই সাথে আমরা মা-বাবাকে সন্তানের খেলাধুলার সময় যেটা দিতে বলেছি, সেটা হলো ঘরোয়া বা পারিবারিক পরিসরে। কোনো খোলা ময়দানে, পাবলিক প্লেসে বা জনসম্মুখে গিয়ে একজন মা দৌড়াদৌড়ি করবেন এবং সন্তানকে খেলায় সময় দিবেন সেটি যদি তার নিয়মিত কাজ হয় এবং তিনি যদি সব সময় এমনটি করে থাকেন তাহলে সেটা অবশ্যই উচিত হবে না। কারণ একজন মুসলিম মেয়ে সম্ভ্রান্ত হবেন। তার চালচলন বা তার বেশভূষা অন্য সাধারণ বাজারি মেয়েদের মতো হবে না।।

তবে হ্যাঁ! আলোচিত যে মায়ের কথা আমরা জানি। তিনি এক সাক্ষাৎকারে বলেছেন, তিনি হঠাৎ কোনো এক সময় তার শিশু তাকে পীড়াপিড় করছেন তার সঙ্গে কেউ সময় দেয়ার মতো নেই। তাই তিনি পর্দার মধ্যে থেকে তাকে সময় দিয়েছেন। এটা নিয়ে বোধহয় খুব বেশি কথা বলার সুযোগ নেই। তবে হ্যা! এটা যদি কেউ নিয়ম বানিয়ে নেন তাহলে একজন মুসলিম মেয়ের শান হিসেবে তার সঙ্গে কোনো অবস্থাতেই এটা যায় না। আল্লাহ তায়ালা আমাদের বুঝার তৌফিক দান করুন।

এমডব্লিউ/

 

ads