193850

লঞ্চডুবিতে নিহতদের মাগফেরাত কামনায় মারকাযুদ দিরাসায় দোয়া মাহফিল

বেলায়েত হুসাইন: গত ২৯ জুন সকালে ময়ূর-২ এর বেপরোয়া ধাক্কায় মর্নিং বার্ড লঞ্চ দুর্ঘটনায় নিহত হওয়া ৩৩ জন যাত্রীর রূহের মাগফেরাত কামনায় রাজধানীর মিরপুরস্থ উচ্চতর ইসলামি গবেষণা প্রতিষ্ঠান মারকাযুদ দিরাসাহ্ আল ইসলামিয়্যা-ঢাকায় এক বিশেষ দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় মারকাযের সেমিনার কক্ষে দোয়া মাহফিলটি অনুষ্ঠিত হয়।

দোয়া-পূর্ব সভাপতির বক্তব্যে মারকায পরিচালক মুফতী মামুন আব্দুল্লাহ কাসেমী বলেন, বুড়িগঙ্গার লঞ্চডুবি স্বাভাবিক দুর্ঘটনা নয়; বরং এটি একটি নীরব হত্যাকান্ড। অবহেলাজনিতভাবে এই দুর্ঘটনা ঘটানোর কারণে বিআইডব্লিউটিএ‘র চেয়ারম্যানের পদত্যাগ করা উচিত।

তিনি মনে করেন- জড়িতদের দ্রুত গ্রেফতার করে আইনের আওতায় না আনলে অব্যাহতভাবে এই ঘটনার পূনারাবৃতি দেখতে হবে।

মুফতী মামুন কাসেমী নিহতদের পরিবারকে সর্বোচ্চ ক্ষতিপূরণ দেয়ারও দাবি জানান। এছাড়াও ভবিষ্যতে নৌ-দূর্ঘটনা এড়াতে সরকারকে কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণ করার আহ্বান জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, প্রথম আলোর রিপোর্টে দেখা গেছে স্বাধীনতা উত্তর বাংলাদেশে মোট ২,৫৭৪টি নৌ দুর্ঘটনা ঘটে। এতে প্রাণহানি ঘটে ২০,৫৪৪জন মানুষের। তন্মধ্যে ৯০১টি নৌযান উদ্ধারই করা হয়নি। যাতে মোট সম্পদের ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে ৩,৪১৭ কোটি ২০লাখ টাকা। এত বছর ধরে ধারাবাহিকভাবে দূর্ঘটনা ঘটেই চলেছে, কিন্তু কোন সরকারই প্রায়োগিক কোনো পদক্ষেপ গ্রহন করতে পারেনি। ফলে লাগামহীন দূর্ঘটনা একের পর এক ঘটেই যাচ্ছে। আমরা সাধারণ নাগরিক হিসেবে এসবের অবসান কামনা করি।

দোয়া মাহফিলে আরো উপস্থিত ছিলেন- মাদরাসাতুস সালামের মুহতামিম মুফতি মুহাম্মাদ বিন মোস্তফা, মারকাযুদ্ দিরাসার অর্থনীতি বিষয়ক উস্তায মুফতি হুযাইফা বিন সাদিক, ইফতা বিভাগের মুশরিফ মুফতি আব্দুল আজিজ ফরীদি প্রমুখ।

-এএ

ad